da4ba7d1b5688305010f9df38ec6fbfe045d25e0 Most Terrible horror ghost stories in bangla: গন্ধ যুক্ত লাশ।banglaghoststory.blogspot.com
name="propeller" content="2ed678d440884c082cf36a57cdf105f7"

Sunday, December 10, 2017

গন্ধ যুক্ত লাশ।banglaghoststory.blogspot.com



Scary woman standing in a dark hallway with lighten candle and screaming.



গন্ধ যুক্ত লাশ
ঘটনার বানীতে : আলম চাচ্চু 
.
জয়নালের মেয়ের বয়স ২২-২৩ হবে হয়তো, হঠাৎ তার মেয়ের শরীরে গুটি গুটি কি যেন হল, অনেক চিকিৎসা করাল মেয়েটিকে জয়নাল চাচা, কিন্তু রোগ ছাড়ল না  অবশেষে মেয়ের শরীর পচন ধরতে শুরু করল এবং তার শরির থেকে পচা একটা গন্ধ ভেসে আসতে শুরু করল। সেই ভয়ানক রোগের জন্য জয়নালের বাড়ি আশে পাশে কেউ ভিড়ে না, সবাই অন্য রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করে। হঠাৎ শনিবার মাগরিবের নামাজের আগে মারা যায় মেয়েটি। সেই মেয়েটার মৃত্যর সংবাদ সারা গ্রামে ছড়িয়ে পড়ল কিন্তু লাশ টা বিভতশ্ব আর গন্ধ যুক্ত হওয়ায় কেউ দেখতে আসলো না এমনি মসজিদের ইমামও না,,
মেয়েটার লাশ অই রোগে এতটাই পচে গিয়ে ছিল যে গোসল করানোও প্রায় অসম্ভব, এদিকে ইমাম না আসায় তার জানাযার নামাজও পড়া হয়নি,,, তাই রাতের আধারেই গলায় দড়ি বেধে বেতের পাটি দিয়ে মুড়িয়ে লাশটাকে বাড়ির পাশে খালের এক কিনারায় গর্তে পুতে ফেলা হল 
.
সেই সময় থেকে শুরু হল ঘটনা,,, রাতে যারা উঠে বা অই খালের আশে পাশে রাতে কেউ চলাফেরা করলে অনেকেই নাকি অই দুর্গ্নন্ধটা অনুভব করতে পারে,,, তাই বহুদিন অই জায়গা দিয়ে কেউ চলফেরা করেনি,,, আজ সেই ঘটনার ২০ বছর হয়েগেল,, কালের বিবর্তনে সেখানে এক বিশাল অট্টালিকা গড়ে উঠেছে,,, অনেক দিন কোন সমস্যা হয়নি কিন্তু অই কবরের ওপরে অট্টালিকার যে রুমটি করা হয়েছে সেখানে নাকি এখনো মাঝে মাঝে সেই বিভতশ্ব দুর্গ্নন্ধটা আসে,,, তো আমার আলম চাচা সেটা প্রমান করার জন্য অই রুমে ডোকে এবং সারারাত সেখানে অবস্থান করে,,, রাত গভির হচ্ছে কিন্তু চাচা ঘুমাচ্ছে না আর কাউকে দেখতেও পাচ্ছে না এবং সেই গন্ধটাও পাচ্ছে না। এদিকে অনেক রাত গড়িয়ে গেছে কিন্তু সে রাতে চাচা কিছুই দেখতে পেলেন না,,, যথারিতি তিন আবারো পরেরদিন রাতে সেখানে ছিলেন তবুও কিছু বুঝতে পারলেন না,,, কিন্তু তার পরেরদিন শনিবার রাতে তিনি অই রুমে ডোকেন রাত্রি যাপন করার জন্য,, সেদিন চাচা দুই একটা সিগারেট খেয়ে ক্লান্তি যুক্ত শরির নিয়ে ১১ টা কি ১২ টার দিকে ঘুমাতে যাবে তখন একটা কালো ছায়া দেখতে পান, তিনি একটু ভয় পেলেন এবং কাছে গিয়ে দেখলেন ওটা বাহিরের লাইটের আলোতে চেয়ারের ছায়া টা অই রকম দেখাচ্ছে,,, পরে তিনি যথারিতি ঘুমিয়ে পড়েন। হঠাৎ তার ঘুম ৩ দিকে একটা শব্দে ভেংগে যায় তিনি বিছানা থেকেই কুকুর মরার মতো একটা পচা পচা গন্ধ টের পায়,, চাচা বিছানা থেকে উঠে গন্ধ শুকতে শুকতে বুঝতে পারে তার খাটের নিচ থেকে গন্ধটা আসতেছে,,, তিনি খাটের নিচে তাকালেন এবং একটা মুরানো পাটি দেখতে পেলেন,,, তিনি ভাবলেন এটা আবার এখানে কে রাখলো আর এটা থেকে এমন দুর্গন্ধ আসতেছ ক্যান??? ভেবেই তার সেই ২০ বছর আগে মারা যাওয়া মেয়েটার কথা মনে পড়ে যায় এবং তখন তিনি হাসতে থাকেন আর বিছানার নিচ থেকে সেটা বের করে আনেন,,, পাটি টা সরিয়ে তিনি যা দেখলেন.. একটা যুবতি মেয়ের লাশ চোখটা বড় বড় সারা গায়ে পচন ধরা অপলক দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে তারদিকে,,, এবং সেটা চাচার গলা চেপে ধরে হাত দিয়ে,, চাচা জোরে চিতকার দেয় এবং জোরে একটা ঝাকি দিয়ে নিজেকে ছাড়িয়ে নেয় ফলে নরম পচা মাংস গুলো ছিটকে পড়ে চারদিকে,,,, চাচার চিতকার শুনে অনেকেই উঠে সেখানে যায় এবং রোম টা ভেতর থেকে বন্ধ থাকায় দরজা ভেংগে সবাই ভেতরে ডোকে এবং সেই পচা গন্ধটা সবাই অনুভব করতে পায় এবং তারা দেখে চাচা অজ্ঞান হয়ে খাটের পাশে পড়ে রয়েছে এবং তার চারপাশে পচা গলা মাংস গুলো পড়ে রয়েছে.... (সংগ্রহীত)

No comments:

Post a Comment